১৫ জুন ২০২৪

মাটির পাত্রে খাবার রাখলে কী হয়?

কিশোর ডাইজেস্ট ডেস্ক
১৭ মে ২০২৪, ১৮:০০
যদি মাটির পাত্রে রান্না করেন তাহলে পাবেন অনেক উপকার। ছবি : সংগৃহীত

আধুনিক স্টাইলে রান্না করার জন্য এখন প্রায় প্রত্যেকেই ননস্টিক পাত্র ব্যবহার করে থাকেন। ননস্টিক না হলেও নিদেনপক্ষে অ্যালমুনিয়াম অথবা সিলভারের পাত্রে রান্না করা হয়। কিন্তু অ্যালমুনিয়াম ননস্টিক অথবা সিলভারের পাত্রে রান্না করার থেকে আপনি যদি মাটির পাত্রে রান্না করেন তাহলে পাবেন অনেক উপকার।

আজ থেকে কিছু বছর আগেও মাটির পাত্রে পানি রাখার চল ছিল প্রত্যেক বাড়িতে, যা এখন তেমনভাবে দেখা যায় না। মাটির পাত্রে পানি রাখলে সেটি যেমন ঠান্ডা থাকে তেমন থাকে পরিষ্কার। কিন্তু এখন সেভাবে মাটির পাত্র ব্যবহার করতে দেখা যায় না কাউকে। কিন্তু ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউট্রিশন একটি গবেষণায় দাবি করেছে, রান্নার ক্ষেত্রে সব থেকে উপযোগী হল মাটির পাত্র।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন জানাচ্ছে, ননস্টিক পাত্রে যখন আপনি রান্না করেন তখন একটি ক্ষতি করে ধোয়া নির্গত হয়, যা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক প্রমাণিত হতে পারে। তবে খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রে স্টেনলেস স্টিল সবথেকে বেশি নিরাপদ। তবে আপনি যদি অ্যালমুনিয়াম, লোহা, তামা পিতলের পাত্রে চাটনি অথবা সাম্বারের মতো খাবার খান, তা আপনার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে হবে ক্ষতিকারক।

ননস্টিক পাত্রে রান্না করলে ক্যানসার, থাইরয়েড, উচ্চ রক্তচাপের মতো বেশকিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি যদি মাটির পাত্র ব্যবহার করেন তাহলে তা হবে সব থেকে বেশি নিরাপদ। মাটির পাত্রে রান্না করলে বেশ কিছু উপকার পাওয়া যায় যেমন মাটির পাত্রে তাড়াতাড়ি রান্না করা যায় না। আস্তে আস্তে রান্না করলে খাবার খুব ভালোভাবে সেদ্ধ হয় এবং খাবারের মধ্যে কোনও ব্যাকটেরিয়ার উৎপন্ন হয় না।

মাটির হাঁড়িতে অথবা কড়াইয়ে যদি রান্না করতে পারেন, তাহলে আপনার খাবারের সমস্ত পুষ্টিগুণ বজায় থাকবে এবং খাবারের মধ্যে মসলাগুলো খুব সুন্দরভাবে মিশে যাবে। সর্বোপরি মাটির পাত্রে রান্না করলে খুব কম তেল লাগে, যা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ভীষণ উপকারী। মাটির পাত্রে খাবার রাখলে সেটি বেশ অনেকক্ষণ গরম থাকে তাই বারবার গরম করার কোনও সমস্যা থাকে না।

মাটির পাত্র যেহেতু কাদা মাটি দিয়ে তৈরি করা হয় তাই সেটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং থাকে রাসায়নিক মুক্ত। তবে মাটির পাত্র ব্যবহার করতে হলে তা সযত্নে ব্যবহার করতে হবে না হলে ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।